২রা অক্টোবর, ২০২০ ইং, ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম :

‘সুন্দরবনে বর্জ্য না ফেলি , সুন্দরবন সুরক্ষা করি’

রনজিৎ বর্মন শ্যামনগর(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি: মঙ্গলবার সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলা প্রেসক্লাবে সুন্দরবন স্টুডেন্ট সলিডারিটি টিম,উপজেলা জনসংগঠন সমন্বয় কমিটি ও বারসিকের আয়োজনে রাস উৎসবকে কেন্দ্র করে সুন্দরবন উপক’ল বৈচিত্র্য সুরক্ষায় “সুন্দরবনে বর্জ্য না ফেলি ,সুন্দরবনকে সুরক্ষা করি” বিষয়ক এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
সংবাদসম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বারসিক ঢাকার কর্মকর্তা গবেষক পাভেল পার্থ বলেন নদীমাতৃক এ দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম জুড়ে বিশাল উপকুল। এই উপকুল দিয়েই সকল নদী বঙ্গোপসাগরে মিশেছে।আর এই উপকুলেই একক আয়তনে পৃথিবীর সর্ববৃহৎ ম্যানগ্রোভ বন সুন্দরবনের অবস্থান।এই বন হাজার বছর ধরে ঘূর্নিঝড়,জলোচ্ছাসের মতো প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে উপকুলকে সুরক্ষা করেছে।সুন্দরবনকে ঘিরে হাজার বছর ধরে স্থানীয় জনগোষ্ঠির যে জ্ঞান ও দক্ষতা গড়ে উঠেছে তাকে গুরুত্ব দিতে হবে। এখানকার জনজীবন পেশা,ভাষা,সংস্কৃতি,প্রাণ সম্পদ এবং বাস্তসংস্থানের বৈচিত্র্যকে শ্রদ্ধা করতে হবে।
তিনি বলেন গবেষনা প্রতিষ্টান বারসিক দীর্ঘদিন ধরে দেশের ভিন্ন কৃষিপ্রতিবেশ অঞ্চলে প্রাণ বৈচিত্র্য সংরক্ষণ,দূর্যোগ ঝুকিঁ মোকাবেলা,সাংস্কৃতিক সুরক্ষা ও সমাজের সকল স্তরের জনগণ এবং প্রাণ প্রকৃতির ভেতর শ্রদ্ধাশীল সম্পর্ক উন্নযনের মাধ্যমে এক বহুত্ববাদী সমাজ বিনিমার্ণে কাজ করে যাচ্ছে। এ ধারাবাহিকতায় সুন্দরবন স্টুডেন্ট সলিডারিটি টিম,উপজেলা জনসংগঠন সমন্বয় কমিটি ও বারসিক যেীথভাবে ২১ থেকে ২৩ নভেম্বর সুন্দরবন উপকুল বৈচিত্র্য সুরক্ষায় প্রবীন নবীন সংহতি শীর্ষক কর্মসূচির আয়োজন করেছে। এ সময়টাতে সুন্দরবনের দুবলার চরে রাসমেলায় আগত পূণ্যার্থী,দর্শনার্থী,পর্যটক,বনবিভাগ,গণমাধ্যম,প্রশাসন,স্থানীয় সরকার ও অন্যান্য পেশাজীবি জনগণের কাছেও কর্মসূচির মুল সুর পেীঁছে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে। তিনি বলেন এ কর্মসূচিতে উপকুল অঞ্চলের মানুষ সংহতি জানিয়েছেন,যুক্ত করেছেন নিজেদের ভালবাসা। এ বছর নদীভাঙ্গন ঝুঁকিতে থাকা মানিকগঞ্জের নবীন প্রবীন একটি দল সুন্দরবন সুরক্ষা কর্মসূচিতে সংহতি জানিয়েছে। এ ব্যাপারে জনসচেতনতা সৃষ্টি হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। তিনি লিখিত বক্তব্যে সকলের প্রতি আহব্বান জানিয়ে বলেন সুন্দরবন সুরক্ষায় সুন্দরবনের নদীতে কোনো ময়লা আবর্জনা পলিথিন বর্জ্য না ফেলি।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বারসিক ঢাকার কর্মকর্তা জাহাঙ্গির হোসেন,শ্যামনগরের এলাকা সমন্বয়কারী পার্থ সারথি পাল, সুন্দরবন স্টুডেন্ট সলিডারিটি টিমের সভাপতি মারুফ হোসেন মিলন,উপজেলা জনসংগঠন সমন্বয় কমিটির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম,শ্যামনগর প্রেসক্লাবের সভাপতি জি এম আকবর কবীর সহ গনমাধ্যমকমী প্রমুখ।

ছবি-শ্যামনগর প্রেসক্লাবে সুন্দরবনে বর্জ্য না ফেলি ,সুন্দরবন সুরক্ষা করি বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করছেন গবেষক পাভেল পার্থ।

 

 

Share Button